বাবা –নাহিদ হাসান

বাবা –নাহিদ হাসান

বাবা

বাবা,তুমি বলতে

আমি হলাম তোমার হ্রদয়,আর আপু হল আম্মুর অন্তরা৷

দুটি মনই যে আজ একা পরে গেলো

কিন্তু বাবা,আমি ঠিক জানি!!

কতটা শান্তি পাচ্ছ,আজ তুমি৷

তোমার এত প্রতিক্ষা আর কষ্টের অবসানে,আমরা কি কাঁদতে পারি??

নীথর পরে থাকা তোমার দেহ,কিন্তুু মুচকি সেই হাসিটা আমি ঠিকই দেখেছি৷

তোমার, তৃপ্তির সেই অনূভূতি,এই`হ্রদয়ই`তো বুঝবে,সবার অলখ্যে৷

ছোট্ট হ্রদয় কে,যে আজ বড় হতেই হল৷

বাবা, তোমার কথা বলতে পারিনি এখনো,তোমার প্রেয়সীকে

 তবুও সে বুঝে গেছে হয়তো!!!

বুঝে গেছে,মিষ্টি খুনসুটি করার মানুষটা আর নেই৷

নেই মিষ্টি শাসন করার মানুষটা৷

সেই মানুষটা, যার অপেক্ষায়,গভীর রাত পর্যন্ত খাবার নিয়ে বসে থাকা৷

বসে থাকা, শুধু এটা শুনতে, বউটা আমার জন্য এখনো না খেয়ে বসে আছে??

বাবা, একা পরে গেল সেও৷

বাবা,

আমি আর আম্মুর কথার অবাধ্য হব না৷

আপুকেও আর শুধু শুধু জালাতন করবো না৷

আপুর সব কথা শুনবো৷

রাত করে বাইরে একদমি থাকবো না৷

সবার বাধ্য হয়ে থাকবো৷

কারো সাথে আর ঝগরা করবো না৷

তুমি দেখে নিও বাবা:

তোমার সেই ছোট্ট“গুডবয়টি“হয়ে যাব

বাবা,তুমি ভাল থেক৷৷৷৷৷

আরও পড়ুন– নারী – মে‌হেদি হাসান